অসংগতিতে ভরা মামলা দিয়েই দখলের চেষ্টা

0

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের দখলে থাকা ৪ একর ২৪ শতাংশ জায়গা নিজের দাবি করে দেয়াল তুলছেন মোহাম্মদ আলী নামের এক ব্যক্তি। এর আগে আশুলিয়া থানায় করা এক মামলায় তাঁর এই জায়গা গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র অবৈধভাবে দখলের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ আনেন তিনি। আশুলিয়া থানার পুলিশ বলেছে, অভিযোগটি তদন্তের পর সঠিক প্রমাণিত হওয়ায় তারা মামলাটি নিয়েছে।

মোহাম্মদ আলীর এই দাবি এবং আশুলিয়া থানার বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে প্রথম আলোর অনুসন্ধানে দেখা গেছে, জাল দলিল দিয়ে মোহাম্মদ আলীসহ তিনজন জায়গাটি দখল করছেন। ৪ একর ২৪ শতাংশের মধ্যে ২ একর ৬৪ শতাংশ জমির দাবিদার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। আর বাকি ১ একর ৬০ শতাংশের দাবিদার আওলাদ হোসেন নামের এক ব্যক্তি। এই দুই পক্ষের সঙ্গেই উচ্চ আদালতে মোহাম্মদ আলীর একাধিক মামলা চলছে।

শুধু এই মোহাম্মদ আলী নয়, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের দখলে থাকা জায়গা নিজেদের দাবি করে গত ১৫ থেকে ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত আশুলিয়া থানায় আরও চারটি মামলা হয়েছে। প্রতিটি মামলায়ই প্রধান আসামি করা হয়েছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে। প্রত্যেকে দাবি করেছেন, জায়গাগুলো তাঁদের দখলে ছিল। দেয়ালসহ অন্যান্য নির্মাণকাজ করতে গেলে জাফরুল্লাহর নির্দেশে তাঁদের বাধা দেওয়া হয়। তিনজনেরই দাবি, নিজেদের জায়গা ভোগদখল করতে দেওয়ার বিনিময়ে তাঁদের কাছে মোটা অঙ্কের টাকা চাওয়া হয়েছে। এর একটি মামলা নেওয়া হয় ছয় বছর আগের ঘটনায়।

Print Friendly, PDF & Email

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.