শিরোনাম

গজারিয়ায় চিরকুট লিখে আত্মহত্যার ৮ দিন পরেও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি

0

নিজস্ব প্রতিবেদক (মুন্সিগঞ্জ নিউজ  24.net) # মুন্সীগঞ্জের  গজারিয়া উপজেলার বিষদোন ভাটেরচর গ্রামে গত মঙ্গলবার ২৪ মার্চ ২০২০ খ্রিঃ আনুমানিক ছয়টার দিকে ভাটেরচর দে এ মান্নান পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর মানবিক শাখার শিক্ষার্থী জয়া (১৫)চিরকুট লিখে নানা কফিল উদ্দিনের বাড়ির ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। এই সময় তার মা জাহানারা বেগম ওরফে জানু  বাড়িতে ছিলেন না ।   জানা যায় জাহানারা বেগম দীর্ঘদিন যাবত ১ ছেলে ১ মেয়ে  নিয়ে বাপের বাড়িতে থাকে।তার স্বামীর নাম অাক্তার হোসেন। বাড়ি হোগলা কান্দি। তার স্বামীর সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে বোনের বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলেন।  সন্ধ্যার    দিকে বাড়িতে এসে দেখে ঘরের ভিতরের দরজা বন্ধ।  বার বার ডাকাডাকি করেও  দরজা বন্ধ থাকায় দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে ওড়না পেচানো ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়।  আত্মহত্যার পর জাহানারা বেগম ওরফে জানু গজারিয়া থানায় লিখিত অভিযোগের পর থানায় ৩০৬ ধারায় মামলা রুজু করা হয়। গজারিয়া থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্তের পর দাফন করা হয়। জয়া আত্মহত্যার পূর্বে চিরকুটে লিখে যায়—- অামি জীবনের প্রথম একসাথে দুইটা ছেলের সাথে প্রেম করছি। অস্পষ্ট তারিখে নয়নের সাথে ঘুরতে গেছি। তানজিল তা দেখে ফেলছে। তাই তানজিল অামার বাড়িতে বিচার দিছে। আর নয়নের সাথে গেনজাম লাগাইছে।অার তানজিল অামার হুমকি দেয় ষে অয় অামার সব ছবি অার বিডিও fb,তে ছেড়ে দিব অামি। তানজিলকে ও অনেক ভালোবাসি নয়নকেও অনেক ভালোবাসি।অামি কাওরেই ছারতে চাই নাই।তাই অাজ অামার এইদশা।plz তানজিল অার নয়ন পারলে অামারে মাফ করে দিও।অার নয়ন অামি তোমাকে মন থেকে ভালোবাসি।অামি তোমাকে ঠকাতে চাইনি। অামার মৃত্যুর জন্য দায়ী শুধু তানজিল। মা তুমি অামায় মাফ করে দিও।তানজিলের বাড়ি বৈদ্দার গাও। বাপের নাম নাছির সরকার।ইতি  জয়া

মুন্সীগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট নেট

জারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ ইকবাল হোসেনের নিকট মামলার অগ্রগতি  জানতে চাওয়া হলে তিনি মুন্সিগঞ্জ নিউজ 24.net কে জানান থানায় ৩০৬ ধারা মামলা হয়েছে.। লাশ ময়নাতদন্ত হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট আসলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এলাকাবাসী  ও আত্মীয় সূত্রে জানা যায়  মেয়েটি প্রেম ঘটিত ঘটনার কারনে আত্মহত্যা করেছেন । উপজেলার  বৈদ্যার গাও গ্রামের নেছারুদ্দিনের ছেলে তানজিল(২২), হোগলা কান্দি গ্রামের মিজানের ছেলে নয়নের (৩৪) সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো । কিছুদিন আগে তানজিলের জন্ম দিনে  জয়া তার বান্ধবীকে নিয়ে অংশ গ্রহন করেছিল । সেই জন্ম দিনের অনুষ্ঠানে  জয়া, তানজিল, মহিউদ্দিন,মাহিন খান, অালামিন খান, কাদির খান, অারমান,সজিব খান,সহ অনেক বন্ধরা   অংশ গ্রহন করে।  বিষদোন ভাটেরচর  গ্রামের  গ্রাম পুলিশ রহিম ও এলাকাবাসী জানান চিরকুটে লিখা অনুযায়ী অাগাইলে মৃৃত্যু রহস্য উদঘাটন  সম্ভব হবে।               ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য তানজিল মাহিন, নয়ন,মহিউদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.