শিরোনাম

গজারিয়ায় উত্ত্যক্তকারীদের অটোরিকসা চাপায় তিন ছাত্রী আহত!!

0

 

আল আমিনঃ  গজারিয়া উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের বড়রায়পাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তিন শিক্ষার্থী উত্ত্যক্তকারীদের অটোরিকসা চাপা পড়ে আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর)  বিকালে রায়পাড়া- আড়ালিয়া সড়কে ওই ঘটনা ঘটে।

অটোরিকসা চাপায় আহত তিন ছাত্রীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে গুরুতর আহত স্বর্ণা আক্তার(১৩)ও আছিয়া আক্তার (১৪) কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আহত স্বর্ণার বাবা মিজানুর রহমান জানান, স্বর্ণার বা পায়ের তিনটি আঙ্গুল পায়ের পাতা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে, আছিয়ার অবস্থাও গুুুুরুতর। মুক্তা আশংকা মুক্ত।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,  বিদ্যালয় ছুটির পর তিন বান্ধবী নবন শ্রেনীর  মুক্তা আক্তার, স্বর্ণা ও আছিয়া অটো রিকসা করে বাড়ি ফেরার পথে অটো চালক ও তার যাত্রীবেশী  দুই সহযোগী  চলন্ত গাড়িতে তিনজনকে বিভিন্ন ভাবে উত্ত্যক্ত করতে থাকে এক সময় তারা অটো থেকে নেমে যেতে চাইলে বখাটের দল গাড়ি  এলোপাথারি চালিয়ে তিন ছাত্রীকে ভয় দেখানো সহ আরো বেশী উত্ত্যক্ত করতে থাকে ।

এক পর্যায়ে অটোরিকসাটি সড়কের পাশের  খাদে পড়ে যায় এ সময় তিন ছাত্রী গুরুতর আহত হয়। আহত তিন ছাত্রীর বাড়ি আড়ালিয়া গ্রামে।

তিন বখাটে অটো রেখে পালিয়ে যায়। আহত তিন ছাত্রী বখাটে উত্ত্যক্তকারীদের পরিচয় জানে না বলে। তবে বখাটের দেখলে চিনতে পারবে বলে আহত মুক্তা জানিয়েছে। এ ঘটনার পর স্থানীয় শিক্ষার্থীদেও মধ্যে আতঙ্গ ছড়িয়ে পড়ে।স্হানীয় শিক্ষার্থীরা জানান, প্রতিনিয়তই তারা ইভটিজিংএর স্বীকার হন।

বড়রায় পাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল খায়ের জানান, আমরা বখাটেদের পরিচয় জানার চেষ্টা করছি, তিনি আরো জানান, আড়ালিয়া-রায়পাড়া সড়কে চলাচলকারী অটোরিকসার লাইনম্যানকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করলে সহজেই চালকের পরিচয় জানা সম্ভব।

গজারিয়া থানার ডিউটি অফিসার এএসআই আবদুস সালাম রাত সাড়ে নয়টায় জানান, বিষয়টি আমরা অবগত হয়েছি। ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

 

Print Friendly, PDF & Email

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.