প্রকাশ্যে দিন দুপুরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা # ঘাতকের থানায় আত্মসমার্পন !!

0

এস এম নাসির উদ্দিন (মুন্সীগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট নেট) #   মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় প্রকাশ্য দিবালোকে মো. স্বপন মিয়া (৩৫) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে ঘাতক আরিফ হোসেন নিজেই থানায় আত্মসমার্পন করেছ।মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে ভবেরচর ইউনিয়নের ভিটিকান্দি (নয়াকান্দী)  গ্রামের হান্দার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।ঘাতক আরিফ হোসেন ভবেরচর ইউনিয়নের নয়াকান্দী গ্রামের হান্দার বাড়ির মৃত আবু মিয়ার ছেলে।নিহত মো. স্বপন মিয়া উপজেলার টেঙ্গারচর ইউনিয়নের ভাটেরচর গ্রামের মৃত হান্নান মিয়ার ছেলে।মো. স্বপন মিয়া জীবিকার তাগিদে ভগ্নীপতি শহিদুলের সাথে  নয়াকান্দি নদীতে মাঝে মাঝে মাছ ধরত সেই জন্যে হান্দার বাড়িতে থাকত।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে ভবেরচর থেকে বাড়ি ফেরার পথে মো. স্বপন মিয়াকে একা পেয়ে নয়াকান্দী গ্রামের ব্রিজের পাশে পেছন দিক থেকে এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্বপন মিয়ার মাথায় মুখে,গালে ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করে স্বপন মিয়ার মৃত্যু নিশ্চিত করে দৌড়ে গিয়ে ঘাতক আরিফ হোসেন গজারিয়া  থানায় আত্মসমার্পন করেন। পুলিশ ঘটনার স্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে। তবে  ঘাতক থানায় আত্মসমর্পন করে পুলিশের কাছে কি জবানবন্দী রেকর্ড করে সে তথ্য জানা সম্ভব হয় নাই।

গজারিয়া থানা ও হান্দার বাড়ির বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়  পরকীয়ার কারণে  হত্যা কান্ড ঘঠেছে। এ বিষয়ে হত্যা মামলা  ও সুরুত হালের প্রক্রিয়া চলছে।

গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জানান, ‌‘আত্মসমর্পণকারী আরিফ স্ত্রী রোকেয়ার সঙ্গে স্বপনের পরকীয়া সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ধারালো দা দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনার পরপরই সংবাদ পেয়ে গজারিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত আরিফ নিজেই থানায় আত্মসমর্পণ করেছে। মরদেহের সুরতহাল শেষে লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয় এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

Print Friendly, PDF & Email

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.