বিদ্যুতের ভেলকিতে অতিষ্ঠ সিলেটবাসী

0

এমবিপ্র প্রতিনিধি: রমজানে বিদ্যুতের ভেলকিবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে সিলেট নগরের জনজীবন। বিদ্যুতের চাহিদার অনুপাতে সরবরাহের কোনো কমতি না থাকলেও চরম আকার ধারণ করেছে বিদ্যুৎ বিভ্রাট। গেল ক’দিন ধরে নাজুক পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছে বিদ্যুত সরবরাহ ব্যবস্থা। কর্মকর্তারা বলছেন, চাহিদার বিপরীতে সরবরাহের কমতি নাই তবে সঞ্চালন লাইনে ত্রুটির কারণে বিদ্যুৎ বিভ্রাট ঘটছে। অনেক সময় বিদ্যুতের লাইনে ত্রুটি চিহ্নিত করা যাচ্ছে না বলে দাবি সিলেট বিদ্যুৎ বিভাগের। এদিকে নগরের বিভিন্ন এলাকায় ইফতার, তারাবি নামাজ ও সেহরিতে নিয়মিত বিদ্যুৎ থাকছে না। রোজার মাসে বিদ্যুতের এমন আসা-যাওয়ায় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে মুসল্লিদের। এ ছাড়াও দিনের বেলাও কোনো কোনো এলাকায় বিদ্যুতের দেখা মিলছে না। বিদ্যুত না থাকার পাশাপাশি ভ্যাপসা গরমে চরম অতিষ্ঠ মানুষ ও প্রাণিকূল। অফিস ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, শপিংমল চলাকালীন বিদ্যু বিভ্রাটে সমস্যাটা আরো বেশি প্রকট হয়ে ওঠে। বিদ্যুৎ অফিসের তথ্য অনুযায়ী, চাহিদার তুলনায় বিদ্যুত সরবরাহ ঠিক আছে। কিন্তু অতিরিক্ত লোডের কারণে বিদ্যুৎ সরঞ্জাম নষ্ট হচ্ছে। এতে করে নগরীতে বিদ্যুৎ বিভ্রাট দেখা দিয়েছে। একদিকে ভ্যাপসা গরম, অন্যদিকে বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ের সঙ্গে পানি সংকটে চরম দুর্ভোগ নেমে আসে মানুষের মাঝে। বিশেষ করে স্কুলের শিক্ষার্থী, পরীক্ষার্থী, শিশু, বৃদ্ধ এবং রোগীদের নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েন। নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গত ক’দিন ধরে বিদ্যুতর আসা-যাওয়ার খেলাই চলছে সারা দিনরাত। ফলে ঘরে থাকা বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম নষ্ট হচ্ছে। বিদ্যুতের এমন বিভ্রাটে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেছে নগরবাসী। বিদ্যুত অফিসের তথ্য অনুযায়ী, গরম মৌসুমে চাহিদা বেড়ে গেলে সঞ্চালন ও বিতরণ পর্যায়ে ধারণ ক্ষমতার বেশি বিদ্যুৎ সরবরাহের পর সাবস্টেশন এবং ট্রান্সফরমারগুলো ওভারলোডেড হয়ে পড়ে। ওভারলোডেড সাবস্টেশন ও ট্রান্সফরমারগুলো এ কারণে বিকল হয়ে পড়ছে। এতে বিদ্যুৎ সরবরাহের সমস্যাগুলো হচ্ছে। অতিরিক্ত লোডের কারণে লাইনে বিভিন্ন জায়গায় ত্রুটি দেখা যাচ্ছে। এতে করে বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ সমস্যা দেখা দিয়েছে। এদিকে জেলার উপজেলাগুলোর অবস্থা আরো ভয়াবহ। বেশিরভাগ উপজেলায় ইফতার, তারাবি নামাজ ও সেহরিতে বিদ্যুতের দেখাই মিলছে না। ফলে এসব এলাকার সাধারণ মানুষ অতিষ্ট হয়ে ওঠেছেন। ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা জানিয়েছেন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ২০ ঘণ্টাই এসব এলাকার লোকজনকে বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় কাটাতে হচ্ছে। দ্রুত এ পরিস্থিতির সমাধান না হলে বিদ্যুতের দাবিতে আন্দোলনে নামবেন বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা। বিদ্যুৎ বিভ্রাট প্রসঙ্গে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড সিলেট অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী রতন কুমার বিশ্বাস জানান, প্রচণ্ড গরমের কারণে বিদ্যুতের ব্যবহার বেড়ে গেছে। সে কারণে লাইনগুলোতে চাপ বেড়েছে।

 

Print Friendly, PDF & Email

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.