মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় হোগলাকান্দি একই পরিবারের ৫ জন আহত, আটক ১

0

নিজস্ব প্রতিবেদক (মুন্সিগঞ্জ নিউজ ২৪ ডট নেট) ঃ মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ার ইমামপুর ইউনিয়নের হোগলাকান্দি গ্রামে রবিবার ৩ টায় সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একই পরিবারের ৫ জনকে পিটিয়ে অাহত করেছে প্রতিবেশীরা। আহতের পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধের জের এবং আহতের পরিবার কিছুদিন পূর্বে মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপারের বরাবরে অভিযোগ করার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে হোগলাকান্দি গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে সৈয়দ(৩৫), বেবী আক্তারের মাথার উপরে শাবল দিয়ে আঘাত করলে বেবী আক্তারের মাথা ফেটে    যায় ও মাটিতে পড়ে যায় এবং তার আত্মচিৎকারে মমতাজ বেগম, নাজমা, আক্তার মোল্লা ও লোকমান দৌড়ায় অাসিলে তাদের উপরেও নূর মোহাম্মদের ছেলে সৈয়দ, হাফেজ(৪৫), শহীদুল্লাহ ছেলে আহাম্মদ(৪০), আসোক আলীর ছেলে আবুল(৫০), আজিজ বাঘের ছেলে মুক্তার(৫০), হামলা ও মারধর করে লাঠি দিয়ে বাইরাইয়া    রক্তাক্ত ও নীলা ফুলা জখম করে। মমতাজ বেগম বেবী আক্তার বর্তমানে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন নাজমা আক্তার ও লোকমান হোসেনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। গজারিয়া থানার পুলিশ সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে সাব-ইন্সপেক্টর মাইনুল গিয়ে ২ জনক অাটক করে থানায় নিয়ে অাসে। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানা থেকে বাদী পক্ষের  আক্তার মোল্লাকে ছেড়ে দেওয়া হয় এবং বিবাদী পক্ষের নূর মোহাম্মদের ছেলে সৈয়দ কে থানা হাজতে রাখা হয়। গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুন্সীগঞ্জ নিউজ টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে জানান —  যে মহিলা আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে তার টি মামলা হয়েছে। হাবিব উল্লাহ সিকদার মুন্সিগঞ্জ news24.net কে জানান সম্পত্তি নিয়ে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও বিবাদীরা জোরপূর্বক সম্পত্তি দখলের পাঁয়তারা করিতেছে  এবং নূর মোহাম্মদের ছেলে দিল মোহাম্মদ নৌবাহিনীতে চাকরি করে সে প্রায়ই ছুটিতে বাড়িতে আসলে চাকুরীর ক্ষমতা দেখায়, পুলিশের ভয় দেখায়, হুমকি দেয়।

Print Friendly, PDF & Email

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.