রাজধানীর কয়েকটি রেস্টুরেন্টের নাম ও ঠিকানা

0

সময়ের পরিক্রমায় রাজধানী ঢাকা মানুষের পদচারনায় মুখরিত। আর ব্যস্ত এই শহরে শত ব্যস্ততাকে পিছনে ফেলে খাবারের সময়টাতে কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে অনেক ভোজন রসিকই ভিড় জমান ঢাকার রেষ্টুরেন্টগুলোতে। এমনই কিছু নামকরা রেষ্টুরেন্টের তালিকা দেয়া হল। সময় করে চলে যেতে পারেন আপনার পছন্দের রেষ্টুরেন্টটিতে।

১. হেরিটেজ ফিউশান কুজিন

বাংলা, চাইনীজ এবং ইন্ডিয়ান খাবার একই ছাদের নিচে। ২০০৩ ইং সালে রেস্টুরেন্টটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এখানে বাংলা, চাইনিজ এবং ইন্ডিয়ান খাবার পরিবেশিত হয়ে থাকে। এখানে প্রতিদিন লাঞ্চের সময় বুফের আয়োজন করা হয়ে থাকে। তবে ডিনারে সাধারনত বুফের ব্যবস্থা থাকে না। যেকোন ধরনের পার্টি আয়োজনের ব্যবস্থা এখানে রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত। ফিক্সড লাঞ্চ/ডিনার বক্সের ব্যবস্থা এখানে নেই। গুলশান ২, ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্কের বিপরীত পাশেই এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।

২. সাফরন গার্ডেন রেষ্টুরেন্ট

এখানে বুফের ব্যবস্থা আছে। এই রেষ্টুরেন্টে চাইনীজ ও বাংলা খাবার পরিবেশন করা হয়। এখানে বুফে ও ক্যাটারিং ব্যবস্থা আছে। এই রেষ্টুরেণ্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। পার্টি আয়োজন নিয়মিত সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে বিভিন্ন ধরনের অফিসিয়াল সভা, সেমিনার সহ বিয়ে, বিয়ে বার্ষিকী, জন্মদিন সহ সকল ধরনের পার্টি করার ব্যবস্থা রয়েছে। এই রেষ্টুরেন্টে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ জনের পার্টির আয়োজন করা যায়। রিজার্ভেশনের জন্য অবশ্যই ২/৩ দিন আগে, রাত ৯.৩০ এর আগে কল করতে হবে। পার্টিতে বুফের ব্যবস্থাও করা হয়। এখানে ফিক্সড লাঞ্চ/ ডিনার বক্সের ব্যবস্থা আছে। ছয়টি নিয়মিত মেনু আছে, সেখান থেকে বক্স করে দেয়া হয়। বাহিরের যেকোনো অনুষ্ঠানে ক্যাটারিং সার্ভিস প্রদান করা হয়। ঠিকানাঃ বাড়ি# ৫, রোড# ৫১, গুলশান-২, ঢাকা।

৩. স্পিটফায়ার বার-বি-কিউ এন্ড গ্রীল

মনোরম পরিবেশে স্বাস্হ্যকর খাবার হরেক রকমের সিংগেল মেনুর সমন্বয়ে এই রেষ্টুরেন্টের মেনু কার্ডটি সজ্জিত। শিশুদের খেলাধুলার জন্য আলাদা কিডস জোন রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। তবে ধূমপায়ীদের জন্য আলাদা স্মোকিং জোন আছে। এখানে ফিক্সড লাঞ্চ/ডিনার বক্স ও বুফের কোনো ব্যবস্থা নেই। পার্টি আয়োজন যেমন এখানে ছোট/বড় পার্টি যেমন- জন্মদিন/বিয়ে-বার্ষিকী/অন্য কোন উৎসব উপলক্ষ্যে পার্টি বা কনফারেন্স করার ব্যবস্থা রয়েছে। পার্টি করার জন্য রিজার্ভেশন ন্যূনতম ৭ দিন পূর্বে করে রাখতে হয়। এখানে ১২০-১৫০ লোকের এক সাথে আয়োজন করা যায়।
ঠিকানা ও যোগাযোগ: এন ডব্লিউ এফ-৮,গুলশান নর্থ এ্যভিনিউ,গুলশান-২,ঢাকা-১২১২। গুলশান ২ সার্কেল থেকে ৩০০ গজ সামনে পাকিস্তান এ্যাম্বেসির দিকে যেতে হাতের বাম দিকে ভবনের প্রথম তলায় এটি অবস্থিত।

৪. স্পাগেটি জাজ ইতালিয়ান রেষ্টুরেন্ট

এই রেষ্টুরেন্টটিতে শুধুমাত্র ইতালিয়ান খাবার পরিবেশন করা হয়। এখানে রেগুলার মেনু-এর মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন, হোম ডেলিভারীর ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে ফিক্সড লাঞ্চ/ডিনার বক্স, ক্যাটারিং সার্ভিস এবং বুফের ব্যবস্থা নেই। এই রেষ্টুরেন্টে বিয়ে, বিয়ে বার্ষিকী, জন্মদিন, অফিসিয়াল সভা সহ বিভিন্ন ধরনের পারিবারিক ও প্রাতিষ্ঠানিক পার্টি আয়োজনের ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটিতে একসাথে ১২০ জন লোকের বসার ব্যবস্থা রয়েছে। পার্টির জন্য আলাদা কোনো ফ্লোর চার্জ বা সার্ভিস চার্জ দিতে হয় না। শুধুমাত্র খাবারের বিল দিতে হয়। রেগুলার মেনু থেকে পার্টির মেনু নির্বাচন করে দিতে হয়, সে অনুযায়ী জনপ্রতি খাবারের রেট জানানো হয়। নূন্যতম দুই সপ্তাহ আগে পার্টি বুকিং নিতে হয়। ঠিকানা ও যোগাযোগ: হাউজ # ৩, নর্থ গুলশান সার্কেল # ২, গুলশান # ২, ঢাকা।
মোবাইল: ০১৭৫৬-৪২২৪৪১।

৫. সুরাওন কোরিয়ান রেষ্টুরেন্ট

এই রেষ্টুরেন্টটিতে মূলত কোরিয়ান খাবার পরিবেশন করা হয়। এছাড়া অল্প কিছু জাপানিজ ও চাইনীজ খাবারও রয়েছে। রেগুলার মেনু -এর মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন ও ক্যাটারিং সার্ভিসের ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে হোম ডেলিভারী ও বুফের ব্যবস্থা নেই। এই রেষ্টুরেন্টে বিয়ে, বিয়ে বার্ষিকী, জন্মদিন, অফিসিয়াল সভা সহ বিভিন্ন ধরনের পারিবারিক ও প্রাতিষ্ঠানিক পার্টি আয়োজনের ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটিতে একসাথে ৯২ জন লোকের বসার ব্যবস্থা রয়েছে। পার্টিতে অর্ডারের ভিত্তিতে বুফের ব্যবস্থা রয়েছে। পার্টির জন্য আলাদা কোনো ফ্লোর চার্জ পরিশোধ করতে হয় না। রাত ৯:৩০ এর পর কোনো পার্টি বুকিং নেওয়া হয় না। গুলশানে অবস্থিত পাকিস্তান এ্যাম্বাসি থেকে ইউনাইটেড হাসপাতালের দিকে যাওয়ার পথে এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।

৬. সামারকান্দ রেষ্টুরেন্ট

এই রেষ্টুরেন্টটিতে থাই ও চাইনীজ খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিসের পাশাপাশি এই রেষ্টুরেন্টটিতে হোম ডেলিভারী ও ক্যাটারিং সার্ভিস এর ব্যবস্থা রয়েছে। উল্লেখ্য এখানে লাঞ্চ ও ডিনারে বুফের ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত।
ঠিকানা ও যোগাযোগ: বাড়ি নং-২, রোড নং-১২৬, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২। টেলিফোন- ৯৮৮৩৬২৬. গুলশান-১ হতে গুলশান-২ যাওয়ার পথে হোটেল ওয়াশিংটন এর বিপরীত পাশে এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।

সল্টজ
৭. ঢাকা শহরের একমাত্র সী-ফুড রেষ্টুরেন্ট।
গুলশানে অবস্থিত সল্ট্জ্ একটি সী- ফুড রেষ্টুরেন্ট। রেষ্টুরেন্টটিতে রয়েছে বিভিন্ন সী-ফুড আইটেম যেমন শ্রিম্প, ক্রেব, লোবস্টার, স্যালমন্ ইত্যাদিসহ বিভিন্ন সুপ, কাবাব, কোপ্টা, পেস্টা, এ্যাপিটাইজার, সিজলারস্ এবং ডেজার্ট এবং বেভারেইজস্ এর সুব্যবস্থা। রেষ্টুরেন্টটির জনপ্রিয় কয়েকটি খাবার হচ্ছে গ্রিলড্ লোবস্টার, গ্রিলড নরওয়েজিয়ান, স্যালমন, ড্যাপার স্ন্যাপার, কিংস্টন ক্রেইজ, হোয়াইট ফিশ পারমেসানা, গ্রিলড টাইগার প্রোন ইত্যাদি। এখানে আপনি আপনার খাবার আইটেমটি আপনার পছন্দের রান্নার স্টাইল যেমন গ্রিলড্, পেন-ফ্রাইড, ডীপ ফ্রাইড, স্টীমড্, বারবিকিউ প্রভৃতি থেকে নির্বাচন করতে পারেন। আমদানিকৃত সী-ফুডগুলো ব্যতীত অন্যান্য সী-ফুডগুলো প্রতিদিন কক্সবাজার থেকে সরাসরি এখানে আসে। এখানে বুফে ও হোম ডেলিভারীর কোনো ব্যবস্থা নেই। ঠিকানা ও যোগাযোগ: এনডব্লিউ ৮ গুলশান এভিনিউ, ঢাকা। গুলশান সার্কেল -২ থেকে জার্মান দূতাবাস যেতে রাস্তার ডানপাশে।

৮. ব্যাটন রুজ:

এটি একটি বুফে রেষ্টুরেন্ট। ঢাকার বুফে রেষ্টুরেন্টগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। চাইনীজ, ইন্ডিয়ান ও ইতালিয়ান খাবারের সমন্বয়ে এই রেষ্টুরেন্টের বুফে মেনুটি সজ্জিত। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন এর ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। ঠিকানা ও যোগাযোগ: পিংক সিটি (৬ষ্ঠ এবং ৭ম তলা), প্লট-১৫, ব্লক-সিইএন, সড়ক-১০৩, গুলশান এভিনিউ, ঢাকা-১২১। সাবেক গুলশান ওয়ান্ডার ল্যান্ড পার্ক এর পাশে পিংক সিটি ভবনের ৬ষ্ঠ এবং ৭ম তলায় এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত। পিংক সিটি ভবনের প্রবেশ পথের সাথে রেষ্টুরেন্টের আলাদা একটি প্রবেশ পথ রয়েছে।

৯. ষ্টার কাবাব এন্ড চাইনীজ রেষ্টুরেন্ট

চাইনীজ ও থাই খাবারের সুব্যবস্থা এখানে রয়েছে এখানে। ২০১০ ইং সালে রেস্টুরেন্টটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এই রেষ্টুরেন্টে বিভিন্ন রকমের চাইনীজ খাবার ও কাবাব জাতীয় খাবার পাওয়া যায়। এখানে যেকোন ধরনের পার্টির আয়োজন করার ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফের ব্যবস্থা নেই।
ঠিকানা: বাড়ী-১৫, সড়ক-১৭, ব্লক-সি, বনানী, ঢাকা-১২১৩। বনানী বাজার থেকে কাকলী মোড়ের দিকে যাওয়ার পথে বনানী পোষ্ট অফিসের পিছন দিকে অবস্থিত এবিসি রিয়েল এস্টেট টাওয়ার সংলগ্ন ভবনের ১ম ও ২য় তলায় রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।

১০. শর্মা হাউজ, বনানী

ইন্ডিয়ান সহ নানা স্বাদের ফাস্টফুড জাতীয় খাবার পরিবেশন করা হয়। রেষ্টুরেন্টটি ইন্ডিয়ান মুঘল কুজিন, এরাবিয়ান শর্মা এবং ইটালিয়ান পিজা পরিবেশন করে থাকে। এছাড়া সুইজারল্যান্ডের জনপ্রিয় মুভেনপিক ব্রান্ডের আইসক্রীম এখানে পাওয়া যায়। পাশাপাশি এখানে বার্গার, স্যান্ডুইচসহ নানা স্বাদের ফাস্টফুড জাতীয় খাবার পরিবেশন করা হয়। এখানে বুফের কোনো ব্যবস্থা নেই। হোম ডেলিভারীঃ বনানী ও তার আশেপাশের এলাকাতে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকার খাবার অর্ডার করলে হোম ডেলিভারী সার্ভিস প্রদান করা হয়। তবে হোম ডেলিভারীর ক্ষেত্রে সকল খাবারের বিলের সাথে ১০% চার্জ প্রদান করতে হয়। নিয়মিত সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে বিভিন্ন ধরনের ছোট ধরনের পার্টি করার ব্যবস্থা রয়েছে। এই রেষ্টুরেন্টে ২০ থেকে ৩০ জনের পার্টির আয়োজন করা যায়। পার্টির জন্য আলাদা কোনো ফ্লোর ভাড়া প্রদান করতে হয়না। ঠিকানাঃ প্লট – ৬৭/ডি, ব্লক– ই, রোড-১১, বনানী, ঢাকা।

১১. বুমার্স ক্যাফে, বনানী

স্বল্পমূল্যে বুফে খেতে চাইলে এই রেষ্টুরেন্টটিতে চাইনীজ, ইন্ডিয়ান ও ফাস্ট ফুড জাতীয় খাবার পরিবেশন করা হয়। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজনের ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটির ধানমন্ডি ও বেইলী রোডে আরও ২টি শাখা রয়েছে। সকল শাখাতে ফুড মেনু ও খাবারের মূল্য একই রকম। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত।
চাইনীজ বুফেতে যেকোনো দুই আইটেম সাথে ফ্রাইড রাইস অথবা চাওমিন। এর মূল্য ১৮০ টাকা। যেকোনো তিন আইটেম সাথে ফ্রাইড রাইস অথবা চাওমিন। এর মূল্য ২১০ টাকা। ডিনার বুফেতে ১৮টি আইটেমের সমন্বয়ে সজ্জিত জনপ্রতি বুফের রেট ৪২৫ টাকা। সাথে ১৫% ভ্যাট প্রযোজ্য।

১২. নিউ কিংস কিচেন চাইনীজ রেষ্টুরেন্ট

এই রেষ্টুরেন্টটিতে চাইনীজ ও সিচুয়ান খাবার পরিবেশন করা হয়। এছাড়া ডেজার্টস এবং বেভারেজও রয়েছে। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন, হোম ডেলিভারীর ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। ঠিকানা ও যোগাযোগ: আবেদীন টাওয়ার (৫ম তলা), ৩৫, কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ, বনানী (ইকবাল সেন্টারের পিছনে), ঢাকা – ১২১৩। লোকেশন: রেষ্টুরেন্টটি কামাল আতাতুর্ক রোডে ইকবাল সেন্টারের পিছনে সেন্টারের পিছনে অবস্থিত।

১৩. ডিস এন্ড ডেজার্ট রেষ্টুরেন্ট
এই রেষ্টুরেন্টে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। এই রেষ্টুরেন্টটিতে থাই, চাইনীজ, ইন্ডিয়ান ও বাংলা খাবার পরিবেশন করা হয়। এখানে বুফে খাওয়ারব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া অ্যালাকার্টে মেনুর মাধ্যমেও খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন, হোম ডেলিভারী ও ফিক্সড লাঞ্চ বক্সের এর ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। পার্টি আয়োজনে এই রেষ্টুরেন্টটিতে একসাথে ১২০ জন লোকের বসার ব্যবস্থা রয়েছে। পার্টির জন্য আলাদা কোনো ফ্লোর চার্জ পরিশোধ করতে হয় না। বুকিং খালি থাকা সাপেক্ষে ২/৩ দিন আগে বুকিং দিতে হয়। পার্টিতে অর্ডারের ভিত্তিতে বুফের ব্যবস্থা করা হয়। এই রেষ্টুরেন্টের রেগুলার মেনুতে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। ৩০ আইটেমের সমন্বয়ে সজ্জিত বুফে মেনুর জনপ্রতি মূল্য ৫২৫ টাকা + ১৫% ভ্যাট। ঠিকানা ও যোগাযোগ: বাড়ী-১০৮, সড়ক-৮, ব্লক-সি, বনানী, ঢাকা।

১৪. ক্যাফে ইটালিয়ানো

আসল ইটালিয়ান খাবারের স্বাদ নিন ক্যাফে ইটালিয়ানো কফি শপে। এখানে ইটালির বিখ্যাত লাভাজ্জা কফি পাওয়া যায়। এছাড়া এখানে ৫০ ধরনের ইটালিয়ান খাবার পাওয়া যায়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজনের ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়িন্ত্রিত। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই।
ঠিকানা এবং অবস্থান: রাজধানীর অভিজাত এলাকা বনানীর ১১ নম্বর সড়কে চালু হয়েছে ইতালির বিশ্বখ্যাত লাভাজ্জা ব্রান্ডের ফ্রানচাইজ ক্যাফে ইটালিয়ানো। বনানী ১১ নং রোডে সৈনিক ক্লাবের পূর্ব দিকে এটি অবস্থিত।

১৫. হট হাট ফুড লি:

এই রেষ্টুরেন্টটিতে চাইনীজ ও ফাস্ট ফুড জাতীয় খাবার পরিবেশনের ব্যবস্থা রয়েছে। এখানে রেগুলার মেনুর মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন ও ফিক্সড লাঞ্চ/ডিনার বক্সের ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। ঠিকানা ও য়োগাযোগ: বাড়ি নং-২/বি, রোড নং-১২, মিরপুর রোড, ধানমন্ডি, ঢাকা-১২০৯। এ রেস্টুরেন্টে ডিনার ও লাঞ্চের ব্যবস্থা রয়েছে। সুইট এন্ড সাওয়ার প্রন, মাসালা চিকেন, চিকেন ফ্রাইড রাইস ২৮০ টাকা। ফ্রাইড চিকেন ২ পিস, চিকেন ফ্রাইড রাইস, মিক্সড ভেজিটেবল ২৩৫ টাকা।

১৬. স্পাইসি অ্যাফেয়ার

এই রেষ্টুরেন্টটিতে পরিবেশিত খাবারগুলোর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের কাবাব জাতীয় খাবার, চাইনীজ, ফাস্ট ফুড এবং বিভিন্ন ধরনের ড্রিংকস ও ডেজার্ট। এখানে রেগুলার মেনুর মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন ও ফিক্সড লাঞ্চ/ডিনার বক্সের ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। লোকেশন: ধানমন্ডি ২৭ নম্বরে অবস্থিত আগোরা সুপার শপের বিপরীত পাশে এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।

১৭. স্কাই শেফ রেষ্টুরেন্ট

এই রেষ্টুরেন্টটিতে থাই, চাইনীজ, ইন্ডিয়ান, ওয়েস্টার্ন, তান্দুরী, বার-বি-কিউ ও সী ফুড পরিবেশন করা হয়। এছাড়া ডেজার্ট, চা-কফি, আইসক্রীম, জুসও পাওয়া যায়। এখানে রেগুলার মেনুর মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করা হয়। নিয়মিত সার্ভিসের পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন ও ফিক্সড লাঞ্চ/ডিনার বক্সের ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। লোকেশন: ধানমন্ডি জাপান বাংলাদেশ হাসপাতাল দিয়ে ২০০ গজ সামনে ইউল্যাব ইউনিভার্সিটির ঠিক বিপরীত দিকে আহমেদ টাওয়ারের ৬ষ্ঠ তলায় এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।

১৮. সাম্পান রেষ্টুরেন্ট

এই রেষ্টুরেন্টটিতে থাই, চাইনীজ, ইন্ডিয়ান ও বাংলা খাবার পরিবেশনের ব্যবস্থা রয়েছে। এখানে রেগুলার মেনুর মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি পার্টি আয়োজন এর ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। এই রেষ্টুরেন্টটিতে বিভিন্ন ধরনের অফিসিয়াল ও সামাজিক অনুষ্ঠান আয়োজনের ব্যবস্থা রয়েছে। এর জন্য অতিরিক্ত কোনো চার্জ পরিশোধ করতে হয় না। তবে খাবারের মূল্য বাবদ ১০,০০০ টাকা অগ্রিম পরিশোধ করতে হয়। একসাথে ১৫০ জন লোকের পার্টি আয়োজন করা যায়। কোনো কারণে বুকিং বাতিল করতে হলে তা কমপক্ষে ৩ দিন আগে করতে হবে এবং বুকিং মানির ৫০% টাকা কেটে রাখা হয়। রেষ্টুরেন্টের অভ্যন্তরে উচ্চ শব্দে গান বাজানো ও বাইরের কোনো ধরনের খাবার পরিবেশন করা যাবে না। বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে কোনোপ্রকার চেক ও ক্রেডিট কার্ড গ্রহণযোগ্য নয়। লাঞ্চ পার্টির ক্ষেত্রে সময়সীমা দুপুর ১২ টা থেকে বিকাল ৪ টা এবং ডিনার পার্টির ক্ষেত্রে সময়সীমা সন্ধ্যা ৬ টা থেকে রাত ১১ টা।

১৯. শর্মা হাউজ, ধানমন্ডি শাখা-২

ইন্ডিয়ান সহ নানা স্বাদের ফাস্টফুড জাতীয় খাবার পরিবেশন করা হয়। রেষ্টুরেন্টটি ইন্ডিয়ান মুঘল কুজিন, এরাবিয়ান শর্মা এবং ইটালিয়ান পিজা পরিবেশন করে থাকে। এছাড়া সুইজারল্যান্ডের জনপ্রিয় মুভেনপিক ব্রান্ডের আইসক্রীম এখানে পাওয়া যায়। পাশাপাশি এখানে বার্গার, স্যান্ডুইচসহ নানা স্বাদের ফাস্টফুড জাতীয় খাবার পরিবেশন করা হয়। এখানে রেগুলার মেনুর মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি পার্টি আয়োজন ও হোম ডেলিভারীর ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। লোকেশনঃ মিরপুর রোড ধরে, সিটি কলেজ মোড় থেকে ল্যাবএইড হাসপাতালের দিকে যেতে হাতের বামে পড়বে হ্যাপি আর্কেড বিল্ডিং। এই বিল্ডিং-এর নিচ তলায় লিফটের পাশে (সিঁড়ির সামনে) রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।

২০. রেড হট ওক থাই এন্ড চাইনিজ রেস্টুরেন্ট
এই রেষ্টুরেন্টটিতে থাই ও চাইনীজ খাবার পরিবেশন করা হয়। এখানে রেগুলার মেনুর মাধ্যমে খাবার পরিবেশন করা হয়। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি পার্টি আয়োজন, ফিক্সড লাঞ্চ/ডিনার বক্স ও হোম ডেলিভারীর ব্যবস্থা রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফে খাওয়ার ব্যবস্থা নেই। বিয়ে বার্ষিকী, জন্মদিন সহ ছোট আকারের পার্টি আয়োজন করা যায়। এখানে একসাথে ৪০ জন লোকের বসার ব্যবস্থা রয়েছে। পার্টির জন্য আলাদা কোনো ফ্লোর চার্জ পরিশোধ করতে হয় না।

২১. বার বি কিউ ২৭ রেস্টুরেন্ট

খানে পাওয়া যায় জনপ্রিয় কাবাব, গ্রিল, বার বি কিউ। বার-বি-কিউ নাম হলেও এখানে পাওয়া যায় প্রায় সব ধরনের খাবার – ওয়েস্টার্ন, ইন্ডিয়ান খাবারের পাশাপাশি বাদ যায়নি আমাদের দেশীয় খাবারের আইটেমগুলো। ঠিকানা ও অবস্থান: বাড়ি: ৩৫২/বি (পুরাতন), ২১/বি (নতুন), সড়ক: ২৭ (পুরাতন) ১৬ (নতুন)। যারা কাবাব খুব পছন্দ করেন তারা পাবেন বিফ শিক কাবাব, বিফ সসলিক, বিফরোল, বিফ তাওয়া আর চপ। চাইলে খেতে পাবেন মাটন বটি কাবাব, কিংবা মাটন মোগলাই গ্রেভি। আর চিকেনের আইটেম লিস্টও বেশ লম্বা। মেন্যু থেকে বেছে নিতে পারেন রেশমি কাবাব, টিক্কা, তন্দুরী অথবা সাসলিক।

২২. স্প্রিং অনিয়ন থাই চাইনীজ এন্ড সিচুয়ান রেষ্টুরেন্ট

এই রেষ্টুরেন্টটিতে থাই, চাইনীজ ও সিচুয়ান খাবার পরিবেশন করা হয়। হোম ডেলিভারী ও ক্যাটারী সার্ভিস এর ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া পার্টির ব্যবস্থা এখানে রয়েছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফের কোনো ব্যবস্থা নেই। ঠিকানা ও লোকেশন: বাড়ী-০২, সড়ক- ১/বি, সেক্টর-৯, উত্তরা মডেল টাউন, সোনারগা্ঁও জনপথ, ঢাকা-১২৩০। উত্তরা ৯ নম্বর সেক্টরে মাস্কট প্লাজার বিপরীত দিকে আজাদ প্রোডাক্টস এর পাশে এটি অবস্থিত। এই রেষ্টুরেন্টে বিভিন্ন ধরনের পার্টি আয়োজনের ব্যবস্থা রয়েছে। একসাথে ১২০ জনের সিটিং ক্যাপাসিটি এখানে রয়েছে। এজন্য আলাদা কোনো ফ্লোর চার্জ পরিশোধ করতে হয় না। বুকিং খালি থাকা সাপেক্ষে ২ থেকে ৩ দিন আগে ৪০% থেকে ৫০% টাকা অগ্রিম প্রদান করে বুকিং দিতে হয়।

২৩. সী সেল পার্টি প্যালেস
সামুদ্রিক খাবারের সমাহার রয়েছে এখানে। রেষ্টুরেন্টটিতে থাই, চাইনীজ ও ইন্ডিয়ান খাবারের ব্যবস্থা রয়েছে। রেগুলার সার্ভিসের রেষ্টুরেন্টটিতে পার্টি আয়োজন, হোম ডেলিভারী, ক্যাটারিং সার্ভিস সুবিধা আছে। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফের ব্যবস্থা নেই, তবে পার্টিতে অর্ডারের ভিত্তিতে বুফের ব্যবস্থা করা হয়।
ঠিকানা: বাসা – ১১৩/বি, সেক্টর – ৪, মেইন রোড, উত্তরা মডেল টাউন, উত্তরা, ঢাকা – ১২৩০। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন মেইন রোড দিয়ে টঙ্গী যাওয়ার পথে ৫০০ গজ সামনে সড়কের ডান পাশে ভবনের ১ম তলা থেকে ৩য় তলা পর্যন্ত এই চাইনীজ রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত। রেষ্টুরেন্টটিতে বিভিন্ন ধরনের পারিবারিক ও অফিসিয়াল পার্টি আয়োজনের ব্যবস্থা রয়েছে। একসাথে ১০০০ জন লোকের পার্টি আয়োজন করা যায়। পার্টিভেদে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা অগ্রিম পরিশোধ করে বুকিং দিতে হয়। পার্টিতে অর্ডারের ভিত্তিতে বুফের ব্যবস্থা করা হয়। পার্টির জন্য আলাদা ফ্লোর চার্জ প্রদান করতে হয়।

২৪. রসনা বিলাস রেষ্টুরেন্ট
বাংলা, কাবাব, ইন্ডিয়ান, চাইনীজ ও দুই-মিষ্টির ভান্ডার রয়েছে এখানে। এই রেষ্টুরেন্টটিতে বাংলা, চাইনীজ ও ইন্ডিয়ান খাবার পরিবেশন করা হয়। সপ্তাহের দুই দিন বুফের ব্যবস্থা রয়েছে। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি করার ব্যবস্থা থাকলেও হোম ডেলিভারী ও ক্যাটারিং সার্ভিসের কোনো ব্যবস্থা নেই। রেষ্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত।
ঠিকানা: বাড়ি-০৩, লেক ড্রাইভ রোড, সেক্টর-০৭, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০। লোকেশন: উত্তরা সেক্টর ৩ রবীন্দ্র স্মরণী হতে ১৫০ গজ সামনে হাতের ডান দিকে লেক ড্রাইভ রোডে হাতের বাম দিকে ভবনের একতলায় এটি অবস্থিত। এই রেষ্টুরেন্টটিতে সপ্তাহের বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ডিনারে বুফের ব্যবস্থা রয়েছে। ১৫ আইটেমের সমন্বয়ে সজ্জিত বুফে মেনুর রেট জনপ্রতি ৪৫০ টাকা। এছাড়া অন্য কোনো সময় বুফের কোনো ব্যবস্থা নেই।

২৫. ভূতের আড্ডা রেষ্টুরেন্ট

স্বাস্থকর পরিবেশে থাই, ইন্ডিয়ান, চাইনীজ খাবার পরিবেশন করা এখানে। এই রেষ্টুরেন্টটিতে থাই, চাইনীজ, ইন্ডিয়ান ও কিছু সিচুয়ান ফুড পরিবেশনের ব্যবস্থা রয়েছে। রেগুলার সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন, হোম ডেলিভারী সার্ভিস, ক্যাটারিং সার্ভিস ও ফিক্সড লাঞ্চ/ডিনার বক্সের ব্যবস্থা রয়েছে। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফের কোনো ব্যবস্থা নেই। ঠিকানা: রাজউক কসমো শপিং কমপ্লেক্স (২য় তলা), প্লট-১৭, সেক্টর-০৭, আজমপুর, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০

২৬. দি সানমুন হোটেল কাবাব এন্ড বিরিয়ানী:

বিরিয়ানি, কাচ্চি ও কাবাব খেতে চাইলে যেতে পারেন এই রেস্টুরেন্টে। ঠিকানা ও অবস্থান: ২৬ সি উত্তর কাফরুল, ক্যান্টনমেন্ট, ঢাকা-১২০৬। ঢাকা কচুক্ষেত বাসস্ট্যান্ড থেকে রাস্তার পশ্চিম পাশে ভবনের নিচতলায় এটি অবস্থিত।

২৭. তন্দুরী রেস্টুরেন্ট
এখানে রয়েছে থাই, চাইনীজ ও বাংলা খাবারের সমারোহ। রেষ্টুরেন্টটিতে থাই, চাইনীজ ও বাংলা খাবার পরিবেশন করা হয়। নিয়মিত সার্ভিস এর পাশাপাশি এখানে পার্টি আয়োজন ও ফিক্সড ডিনার বক্সের ব্যবস্থা রয়েছে। হোম ডেলিভারী ও ক্যাটারিং সার্ভিস এর কোনো ব্যবস্থা নেই। সম্পূর্ণ রেষ্টুরেন্টটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। এখানে বুফের ব্যবস্থা নেই। ঠিকানা ও যোগাযোগ: বাফওয়া কমপ্লেক্স, পুরাতন এয়ারপোর্ট রোড, তেজগাঁও, ঢাকা। লোকেশন: তেজগাঁও জাহাঙ্গীর গেট থেকে ১৫ গজ পূর্বে অগ্রসনর হয়ে রোডের বাম পাশে ভবনের নিচ তলায় এটি অবস্থিত।

২৮. ময়ূরী রেষ্টুরেন্ট

সুস্বাদু দেশী খাবার পরিবেশক হিসেবে ২০০৭ ইং সালে রেষ্টুরেন্টটি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন হতেই রুচিশীল এবং উন্নত মানের খাবার পরিবেশনায় এটি অর্জন করেছে গ্রাহকদের আস্থা। রেষ্টুরেন্টটির কোন চেইন শপ নেই। লোকেশন: মতিঝিল শাপলা চত্ত্বর এর ৭০০ গজ দক্ষিণ-পশ্চিম কোণে ও জীবন বীমা কর্পোরেশন ভবন থেকে ১০০ গজ পশ্চিম দিকে ভবনের নিচতলায় এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত। ২১, দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকা, মতিঝিল, ঢাকা।

২৯. ধানসিঁড়ি পার্টি সেন্টার
বাংলা এবং চাইনীজ খাবারের সমাহার রয়েছে এখানে। ২০০৪ ইং সালে রেস্টুরেন্টটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এখানে চাইনীজ ও বাংলা খাবার পাওয়া পরিবেশনের ব্যবস্থা রয়েছে। লাঞ্চ/ডিনার বক্সের ব্যবস্থা থাকলেও বুফে সিস্টেম নেই।ঠিকানা ও যোগাযোগ: ৯/সি, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, মতিঝিল, ঢাকা – ১০০০। লোকেশন: মতিঝিল শাপলা চত্ত্বর থেকে ২৫০ গজ পূর্ব দিকে মধুমিতা সিনেমা হলের পূর্ব পাশে ভবনের ১ম ও ২য় তলায় এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।

৩০. নান্না বিরিয়ানী
সুস্বাদু বিরিয়ানী খাবারের পরিবেশক বিখ্যাত নান্না বিরিয়ানী হাউজের নাজিমুদ্দিন রোড ও মতিঝিলে ১টি করে শাখা রয়েছে। এখানে লাঞ্চ/ডিনার বক্সের ব্যবস্থা রয়েছে। মতিঝিল শাখা: ২০, দিলকুশা বাণিজ্যিক এলাকা, মতিঝিল, ঢাকা। শাপলা চত্ত্বর থেকে ৩০০ গজ দক্ষিণ দিকে বঙ্গভবন ৪নং গেট এর বিপরীত পাশে ভবনের নিচতলায় এই রেষ্টুরেন্টটি অবস্থিত।(চেয়ারম্যান অফিস) কার্যালয় যেতে তিন রাস্তার মোড়ে এটি অবস্থিত।

Print Friendly, PDF & Email

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.