২১আগষ্ট ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসের সেই দিনটিও ছিল শনিবার

গজারিয়ায় ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদদের স্মরণে দোয়া ও আলোচনা

0

 সৌরভ আহম্মদ (  মুন্সীগঞ্জ নিউজ 24 ডট নেট) #  মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনা ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনায় ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের ভাটেরচর রাসেল টাওয়ারে বিকাল ৩ টায় দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

গজারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহসিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম ,গজারিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু তালেব ভূঁইয়া ,সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ আহমেদ ফরাজী, জেলা পরিষদ সদস্য নাজমুল মেম্বার, ভবেরচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তার হোসেন, হাবিবুল্লাহ মেম্বার ,বোরহান দেওয়ান, খোকন চৌধুরী ,শাহ আলম অন্যান্য নেতৃবৃন্দ

এই সময় উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম বলেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সেদিন বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হয়েছিলেন সন্ত্রাসবিরোধী শান্তি মিছিলে অংশ নেবেন বলে। রাস্তার ওপর খোলা ট্রাকে তৈরি করা হয়েছিল অস্থায়ী মঞ্চ।কিন্তু তারাই সেদিন দলীয় কার্যালয়ের সামনে ভয়ঙ্কর এক সন্ত্রাসের শিকার হন, যার মূল লক্ষ্য ছিলেন দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা।ছিন্নভিন্ন লাশ, বিস্ফোরণের শব্দ, আহতদের আর্তনাদ, রক্তাক্ত নেতা-কর্মীদের ছুটোছুটিতে সেদিন ওই এলাকা হয়ে উঠেছিল বিভীষিকাময়।সতের বছর আগের সেই দিনটিও ছিল শনিবার। বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে সেটাও ছিল ভয়ঙ্কর আরেক অগাস্ট।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যাকাণ্ডের পর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের ওই গ্রেনেড হামলা ছিল মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দেওয়া দল আওয়ামী লীগের ওপর সবচেয়ে বড় আঘাত।

২০০৪ সালের ২১ অগাস্ট গ্রেনেড হামলা চালিয়ে ২৪ জনকে হত্যার ওই ঘটনা স্তব্ধ করে দিয়েছিল জাতিকে। শনিবার বাংলাদেশের ইতিহাসে নৃশংস ওই হত্যাকাণ্ডের ১৭ বছর পূর্ণ হলো।

Print Friendly, PDF & Email

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.